free
hit counter
Download Free FREE High-quality Joomla! Designs • Premium Joomla 3 Templates BIGtheme.net
Home » নীলফামারীর খবর » ডিমলায় অসহায় বৃদ্ধার ঘর রাতের আধারে পুড়ে দিল দুর্বৃত্তরা

ডিমলায় অসহায় বৃদ্ধার ঘর রাতের আধারে পুড়ে দিল দুর্বৃত্তরা

 

নীলফামারী প্রতিনিধি: নীলফামারীর ডিমলায় ২ নং বালাপাড়া ইউনিয়নের উত্তর সুন্দর খাতা গ্রামের ৫ নং ওয়ার্ডের নতুন বাজারের উত্তর পার্শ্বে বৃদ্ধা মিহিনী বেগমের অনুদান প্রাপ্ত ঘরটি পুড়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

সংবাদকর্মীকে মিহিনী বেগম বলেন আমি ঘড়ে তালা লাগিয়ে আমার নাতি সেতুকে নিয়ে আমার বোনের বাড়ি বেড়াতে যাই। এরই সুযোগে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ( বৃহস্পতিবার) রাত ২.৩০ টায় দূবৃত্যরা আমার অনুদানের পাওয়া ঘরটি পুড়ে দিয়েছে। ঘরে চাল, আটা আর যা সহায় সম্বল ছিল সব পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এখন খোলা আকাশের নিচে খেয়ে নাখেয়ে নাবালক শিশু নাতিকে নিয়ে মানবেতর দিন কাটাচ্ছি।

এলাকাবাসী আঃ রউফ জানান গভীর রাতে প্রতিবেশীদের শোড়চিৎকার শুনে ঘুম থেকে জেগে বাড়ির বাহিরে এসে দেখি বৃদ্ধার অনুদান প্রাপ্ত ঘরটি আগুনে পুড়ছে তাৎক্ষণিক পানি দিয়ে উপস্থিত সবাই আগুন নিভানোর চেষ্টা করি।

এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, ৫নং ওয়ার্ডের উত্তর সুন্দর খাতা নতুন হাটের উত্তর পার্শ্বে বৃদ্ধা মিহিনী বেগমের একটি মাত্র টিনের ঘর সেটিও জরার্জীন রোদ বৃষ্টির কবল হইতে রক্ষার জন্য প্লাসটিকের ছাউনি দিয়ে বৃদ্ধা বসবাস করে মানবেতরভাবে জীবনযাপন করে। আফরাইম আল মিছরী বাবলু বৃদ্ধা মহিলাকে প্রতিশ্রতি দিয়েছেন আমি ভোটে বিজয়ী হলে নতুন ঘর করে দিব আর ভোটে পরাজিত হলেও নতুন ঘর করে দিব। এরই ধারাবাহিকতায় ইউপি নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার পর বৃদ্ধা মহিলাকে আফরাইম আল মিছরী বাবলু আড়াই বান টিনসহ দুইজন মিস্ত্রী ও ২০ জন কর্মীর সহযোগীতায় বুধবার (২৯ ডিসেম্বর) নতুন ঘর তৈরি করে দেয়। বৃদ্ধা মহিলা নতুন ঘর পেয়ে অত্যন্ত খুশি হলেও এখন তার কপাল পুড়ে ছাই।

মিহিনী বেগম স্থানীয় চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্য ও গণ্যমান্য ব্যক্তিকে ঘটনার বিষয়ে মৌখিক অবগত করে ন্যায় বিচার চেয়েছেন।

Check Also

ডোমারে এ.এন. ফাউন্ডেশনের মেধা মূল্যায়ন পরিক্ষা ও পুরস্কার বিতরন অনুষ্ঠিত

  ডোমার (নীলফামারী) থেকেঃ নীলফামারীর ডোমারে অলাভজনক প্রতিষ্ঠান এ.এন. ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেনীর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *