free
hit counter
Download Free FREE High-quality Joomla! Designs • Premium Joomla 3 Templates BIGtheme.net
Home » নীলফামারীর খবর » ডোমারে যথাযোগ্য মর্যাদা ও ধর্মীয় ভাব গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে “পবিত্র ঈদুল আযহা” উদযাপিত 

ডোমারে যথাযোগ্য মর্যাদা ও ধর্মীয় ভাব গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে “পবিত্র ঈদুল আযহা” উদযাপিত 

মোসাদ্দেকুর রহমান সাজু, ডোমারঃ
বিপুল উৎসাহে যথাযোগ্য মর্যাদা আর ধর্মীয় ভাব গাম্ভীর্য পরিবেশে নীলফামারীর ডোমারে “পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপিত হয়েছে।
রবিবার ১০ জুলাই পবিত্র ঈদ-উল আযহার প্রথম জামাত সকাল সাড়ে আটটার অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে প্রচন্ড গরম আবহাওয়াকে উপেক্ষা করে পবিত্র ঈদুল আজহার ঈদের জামাত ডোমার কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানের খোলা মাঠে অনুষ্ঠিত হয়।মুসলিম জাতির সবচেয়ে বড় এই ধর্মীয় উৎসব “পবিত্র  ঈদুল আজহা” যা কিনা কোরবানির ঈদ নামে পরিচিত। মুসল্লিরা ঈদ উল আযহার নামাজ আদায় শেষে মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের জন্য পশু কোরবানি করেন।গত ২ বছর পর ডোমার কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে অত্র এলাকার মানুষেরা ঈদের নামাজ আদায় করেছে। কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাসের নতুন করে প্রভাব বিস্তারের কারণে সরকারী বিধি নিষেধ মেনে ঈদগাঁহ ময়দানে নামাজ আদায়কারী মুসল্লীদের মাক্স পরিধান বাধ্যতামূলক করনের লক্ষ্য মাইকে প্রচার প্রচারণা চালানো হয়েছে।
ঈদুল আজহার তাৎপর্য বর্ননায় হযরত ইব্রাহিম (আঃ) এর পুত্র হযরত ইসমাইল (আঃ) কে স্বপ্নে আদিষ্ট হয়ে আল্লাহর উদ্দেশে কোরবানি করতে  গিয়েছিলেন। আল্লাহর পক্ষ থেকে এই আদেশ ছিল ইব্রাহিমের জন্য পরীক্ষা। তিনি তার পুত্র হযরত ইসমাইল (আঃ) আল্লাহর নির্দেশে জবাই করার সব প্রস্তুতি নিয়ে সেই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন।বর্ণিত আছে, নিজের চোখ বেঁধে পুত্র ইসমাইলকে যখন জবাই সম্পন্ন করেন, তারপর চোখ খুলে দেখেন ইসমাইলের পরিবর্তে পশু কোরবানি হয়েছে,এই হুকুম এসেছিল আল্লাহর পক্ষ থেকে।সেই ঐতিহাসিক ঘটনার স্মৃতি ধারণ করেই ইব্রাহিম (আঃ)এর উপর ওয়াজিব হিসেবে পশু জবাইয়ের মধ্য দিয়ে কোরবানির বিধান এসেছে ইসলামি শরিয়তে।সেই মোতাবেক প্রত্যেক সামর্থ্যবান মুসলমানের জন্য পশু কোরবানি করা ওয়াজিব।
ঈদুল আজহার দুই রাকাত ওয়াজিব নামাজ আদায়ের জন্য ইমাম হিসেবে দ্বায়িত্ব পালন করেন ডোমার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব মুফতি মাওলানা মাহমুদ বিন আলম।
নামাজ আদায় শেষে খতিব খুতবায় কোরবানির তাৎপর্য তুলে ধরেন।কোরবানির মূল কথা হল ত্যাগ। সামর্থ্য অনুযায়ী পশু কোরবানি দিয়ে দরিদ্র প্রতিবেশীদের মধ্যে এর মাংস বিতরণ করা প্রত্যেক মুসলমানের দায়িত্ব।
মহান আল্লাহতায়ালার নির্দেশে হযরত ইব্রাহীম (আ:) এর ত্যাগের মহিমায় চির ভাস্বর পবিত্র ঈদ-উল আযহা।
ডোমার কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে পবিত্র ঈদুল আজহার নামাজে উপস্থিত থেকে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রমিজ আলম।
এসময় ডোমার কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দান পরিচালনা কমিটির সভাপতি বিশিষ্ট শিল্পপতি, শিক্ষানুরাগী এবং ডোমার পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব মনছুরুল ইসলাম দানু বলেন, বিগত ২ বছর পর আজকে আমরা সবাই মিলে একযোগে ডোমার কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে ঈদের নামাজ আদায় করলাম।আজকে আমরা ধনী গরীব সকল ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে সকলেই এক কাতারে উপনীত হয়েছি।
ঈদের জামাত শেষে অনুষ্ঠিত মুনাজাত পরিচালনা করেন ডোমার বাজার জামে মসজিদের খতিব মুফতি মাওলানা মাহমুদ বিন আলম। উক্ত দোয়া অনুষ্ঠানে সমগ্র মুসলিম উম্মাসহ দেশ-জাতির মঙ্গল ও সমৃদ্ধি এবং দেশে-দেশে নিপীড়িত-নির্যাতিত মুসলমানদের রক্ষায় মহান আল্লাহ তায়ালার রহমত ও বিশ্ব নেতৃবৃন্দের সহযোগিতা কামনা করা হয়।

Check Also

ডোমারে এ.এন. ফাউন্ডেশনের মেধা মূল্যায়ন পরিক্ষা ও পুরস্কার বিতরন অনুষ্ঠিত

  ডোমার (নীলফামারী) থেকেঃ নীলফামারীর ডোমারে অলাভজনক প্রতিষ্ঠান এ.এন. ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেনীর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *